ঢাকামঙ্গলবার , ২১ মে ২০২৪
  1. অপরাধ
  2. অর্থনীতি
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আপন আলোয় উদ্ভাসিত
  6. আরো
  7. এক্সক্লুসিভ
  8. কবিতা
  9. কৃষি ও প্রকৃতি
  10. খুলনা
  11. খেলাধুলা
  12. গণমাধ্যম
  13. চট্টগ্রাম
  14. চাকুরি
  15. চাঁদপুর জেলার খবর

আবারো কিং মেকার অ্যাডঃ জাহিদুল ইসলাম রোমান

রূপসী বাংলা ২৪.কম
মে ২১, ২০২৪ ৬:৫৫ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চাঁদপুর সদর উপজেলা নির্বাচন ছিলো আলোচনার শীর্ষে। ছিলো নানা জল্পনা-কল্পনা, উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা ও হিসেব-নিকেশ। এই উপজেলায় চেয়ারম্যান প্রার্থী আওয়ামী লীগেরই  ৫ জন। এরা হচ্ছেন : বর্তমান উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব নূরুল ইসলাম নাজিম দেওয়ান, জেলা আওয়ামী লীগ সদস্য আইয়ুব আলী বেপারী, সদর উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক এডভোকেট হুমায়ুন কবির সুমন, চাঁদপুর জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক আলহাজ্ব মিজানুর রহমান কালু ও ও ছাত্রলীগ নেতা মোহাম্মদ রাকিব মাঝি। নির্বাচনের মনোনয়ন দাখিল, প্রত্যাহার ও যাচাই-বাছাইয়ের পরে প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়। প্রতীক বরাদ্দের পরে নির্বাচনী প্রচারণায় নামেন প্রার্থীরা। আইয়ুব আলী বেপারীর পক্ষে চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র মোঃ জিল্লুর রহমান জুয়েল সমর্থন জানানোর পর। অন্যরা একটু নড়েচড়ে বসেন। তখন চাঁদপুরে রাজনৈতিক নেতা অনেকেই অনেকের পক্ষে বিপক্ষে অবস্থান নেন।

যদিও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে বারবার বলা হয়েছিল দল থেকে কাউকে মনোনয়ন দেয়া হবে না এমনকি কোন এমপি মন্ত্রী কাউকে সমর্থন জানাতে পারবেন না। দলীয় সিদ্ধান্ত মোতাবেক চাঁদপুর ৩ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য ও সমাজকল্যাণমন্ত্রী ডাঃ দীপু মনিও কারো পক্ষে সমর্থন জানায় নি। যেহেতু চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র আইয়ুব আলী বেপারীর পক্ষ নিয়েছেন সেহেতু সাবেক ছাত্রনেতারা পক্ষ নেন এডভোকেট সময় হুমায়ুন কবির সুমনের। সর্বশেষ নির্বাচনের ৩-৪ দিন বাকি থাকতে অ্যাডভোকেট জাহিদুল ইসলাম রোমান ও এডভোকেট জসিম উদ্দিন পাটোয়ারী হুমায়ুন কবির সুমনের পক্ষে অবস্থান নেন।

বাস্তবতা হচ্ছে, অ্যাডঃ জাহিদুল ইসলাম রোমানসহ সাবেক সকল ছাত্র নেতারা সক্রিয়ভাবে নামার পরই বলতে গেলে এডভোকেট সুমন কবির সুমনের ঘোড়া প্রতীকের পালে প্রবল হাওয়া লাগে। নির্বাচনের পুরো সময়টা রোমান ও জসিম পাটোয়ারীসহ ছাত্র নেতারা প্রচারণায় নেমে পড়েন। ছাত্র নেতাদের শোডাউনেই বিজয়ের একটি ইঙ্গিত পাওয়া গিয়েছিল। এক্ষেত্রে জাহিদুল ইসলাম রোমান ও অ্যাডভোকেট জসিম পাটোয়ারী, শেখ মোঃ মোতালেব, ওবায়েদুর রহমান তৃপ্তি, আতাউর রহমান পারভেজ, পারভেজ করিম বাবু, সোহেল রানা, রবিন পাটোয়ারী, মোঃ জহির উদ্দিন মিজিসহ সাবেক ছাত্র নেতারা কার্যত মূল ভূমিকায় ছিলেন।

সকল ছাত্র নেতাদের পরিশ্রমের ফলে চাঁদপুর সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বিপুল ভোটের ব্যবধানে ঘোড়া প্রতীকের প্রার্থী অ্যাডঃ হুমায়ুন কবির সুমন বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি চাঁদপুর জেলা ছাত্রলীগের সাবেক নেতৃবৃন্দের সমর্থিত প্রার্থী ছিলেন। ২১ মে মঙ্গলবার রাতে চাঁদপুর সদর উপজেলা পরিষদ সম্মেলন কক্ষের ফলাফল সংগ্রহ ও তথ্য পরিবেশন কেন্দ্র থেকে কেন্দ্রভিত্তিক ফলাফল ঘোষণা করেন সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার মোঃ সাখাওয়াত জামিল সৈকত।
১৩৪ কেন্দ্রের  ফলাফলে দেখা যায়, ৫০ হাজার ৪৯৫ ভোট পেয়ে চাঁদপুর সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন অ্যাডঃ হুমায়ুন কবির সুমন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী বর্তমান উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ আইয়ুব আলী বেপারী দোয়াত কলম প্রতীকে পেয়েছেন ৩৫ হাজার ৩৫৩ ভোট। অপর তিন প্রার্থীর মধ্যে আনারস প্রতীকের রাকিব মাঝি ৯ হাজার ৭৬০ ভোট, বর্তমান চেয়ারম্যান মোঃ নুরুল ইসলাম নাজিম দেওয়ান কাপ পিরিচ প্রতীকে ৬ হাজার ৮৭৯ ভোট, আর মিজানুর রহমান কালু ভূঁইয়া মোটরসাইকেল প্রতীকে পেয়েছেন ৪ হাজার ৯১৬ ভোট। অ্যাডভোকেট সুমন তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আইয়ুব আলী বেপারীর চেয়ে ১৫ হাজার ১৪২ ভোট বেশি পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন।
ভাইস চেয়ারম্যান পদে মোঃ নুরুল হায়দার সংগ্রাম টিউবওয়েল প্রতীকে ৫১ হাজার ৪৮৪ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আবুল বারাকাত মোঃ রেজওয়ান চশমা প্রতীকে পেয়েছেন ৪০ হাজার ৫৭৬ ভোট ও মোঃ হারুন অর রশিদ হাওলাদার তালা প্রতীকে পেয়েছেন ১৫ হাজার ৮২ ভোট। সংগ্রাম নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী রেজওয়ান থেকে ১০ হাজার ৯০৮ ভোট বেশি পেয়ে ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।
মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে জয়ী হয়েছেন রেবেকা সুলতানা মুন্না (পদ্ম ফুল)। তিনি পেয়েছেন ৭৩ হাজার ৪৪১ ভোট। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী শিপ্রা দাস ফুটবল প্রতীক পেয়েছেন ৩৩ হাজার ৭২২ ভোট। জয়-পরাজয়ের ব্যবধান ৩৯ হাজার ৭১৯ ভোট।
চাঁদপুর সদর উপজেলায় ভোট প্রদানের হার ২৫.৮৩%।
মঙ্গলবার সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত চাঁদপুর সদর উপজেলার মোট ১৩৪টি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ করার জন্যে জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাসহ আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর বিপুল সংখ্যক সদস্য নিয়োজিত ছিলেন। যে কারণে কোথাও কোনো অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি।<br />
নিজ সমর্থিত প্রার্থী বিজয়ী হওয়ার পর চাঁদপুর জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও ফরিদগঞ্জ উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান অ্যাডঃ জাহিদুল ইসলাম রোমান এবং জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি অ্যাডঃ জসিম উদ্দিন পাটওয়ারী বলেন, সুমনের ঘোড়া প্রতীকের এ বিজয় চাঁদপুর সদর উপজেলার জনগণের বিজয়।
উল্লেখ্য, ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের দ্বিতীয় ধাপে চাঁদপুর জেলার তিনটি চাঁদপুর সদর, হাজীগঞ্জ ও শাহরাস্তি উপজেলাসহ দেশের ১৫৬টি উপজেলায় ভোটগ্রহণ শেষ হয়েছে। মঙ্গলবার (২১ মে) সকাল ৮টায় শুরু হয়ে বিরতিহীনভাবে ভোটগ্রহণ চলে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। এবারের নির্বাচনে অধিকাংশ উপজেলার ভোটকেন্দ্রে ছিল ভোটার উপস্থিতি কম।

আর ঘোড়া প্রতীকের বিজয়ের পর অনেককে বলতে শোনা গেছে, ফরিদগঞ্জের পরে চাঁদপুঐরেও রোমানই কিং মেকার।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো। বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।

%d bloggers like this: