ঢাকামঙ্গলবার , ৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
  1. অপরাধ
  2. অর্থনীতি
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আপন আলোয় উদ্ভাসিত
  6. আরো
  7. এক্সক্লুসিভ
  8. কবিতা
  9. কৃষি ও প্রকৃতি
  10. খুলনা
  11. খেলাধুলা
  12. গণমাধ্যম
  13. চট্টগ্রাম
  14. চাকুরি
  15. চাঁদপুর জেলার খবর

আমার রাজনৈতিক দর্শন হলো জাতির পিতার আদর্শের একজন কর্মী

রূপসী বাংলা ২৪.কম
ফেব্রুয়ারি ৬, ২০২৪ ৫:০১ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

চাঁদপুর প্রেসক্লাবের নবনির্বাচিত কার্যকরী কমিটির নেতৃবৃন্দের সাথে শুভেচ্ছা ও মতবিনিময় সভা করেছে জেলা পরিষদ। গতকাল ৫ ফেব্রুয়ারি সোমবার দুপুরে জেলা পরিষদের সম্মেলন কক্ষে এই মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ ওচমান গনি পাটওয়ারী ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ মনোয়ার হোসেন চাঁদপুর প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান। একই সাথে প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকেও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়।
জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ মনোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে ও প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক রোটাঃ মাহবুবুর রহমান সুমনের পরিচালনায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ ওচমান গনি পাটওয়ারী। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ মনোয়ার হোসেন। চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি শাহাদাত হোসেন শান্তর নেতৃত্বে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক সাংবাদিক এই মতবিনিময় সভায় অংশ নেন।
জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ¦ ওচমান গনি পাটওয়ারী তাঁর বক্তব্যে বলেন, এই ভাষার মাসে আমি সকল শহিদকে স্মরণ করছি। আমাদের মাতৃভাষা আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে সারাবিশে^ পালিত হয়। এটি আমাদের জন্যে গৌরবের। তিনি বলেন, আমার রাজনৈতিক দর্শন হলো আমি জাতির পিতার আদর্শের একজন কর্মী। জাতির পিতার কর্মী হিসেবে আমি ২০১৬ সালে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে নির্বাচনে অংশ নেই। ওই সময়ে সবার আগে প্রেসক্লাবের সাংবাদিকরা আমার পাশে এসে দাঁড়িয়েছে। ২০২২ সালের নির্বাচনেও একইভাবে সাংবাদিকরা আমার পাশে ছিলেন। ২০১৬ সালে আমি জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পর আমি যখন প্রথম এই অফিসে প্রবেশ করি, তখন আমার উপলব্ধিতে একটা বিষয় এসেছে যে, জনপ্রতিনিধিরা কেনো অজনপ্রিয় হবে সেটা আমি দেখবো। জনগণের জন্যে কাজ করলে, জনগণের পাশে থাকলে একজন জনপ্রতিনিধি কখনো অজনপ্রিয় হবেন না সে প্রমাণ আমি ২০২২ সালের নির্বাচনে পেয়েছি। এ নির্বাচনে ভোটাররা আমাকে বিমুখ করেন নি। মুক্তিযোদ্ধারা জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান। আমি যতদিন জেলা পরিষদের দায়িত্বে থাকবো, ততদিন দেশের শ্রেষ্ঠ সন্তানদের সম্মান সবার উপরে থাকবে। জেলা পরিষদ সবসময় তাঁদের পাশে আছে।
তিনি বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাদের অহংকার, তিনি চাঁদপুরের মানুষকে ভালোবাসেন। চাঁদপুর-৩ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য ডাঃ দীপু মনি টানা চারবারের এমপি, তিনবারের মন্ত্রী। এতেই বোঝা যায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর চাঁদপুরের প্রতি কতটুকু ভালোবাসা রয়েছে। জেলা পরিষদ প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়ন নিয়ে কাজ করে থাকে। এ লক্ষ্যে আমরা চেষ্টা করছি। শতভাগ না হলেও এর কাছাকাছি আছি। আমি চেষ্টা করছি জনবান্ধব, সাংবাদিকবান্ধব ও জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান মুক্তিযোদ্ধাবান্ধব জেলা পরিষদ গড়ে তোলার।
জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা বলেন, সরকারের উন্নয়নগুলো বাস্তবায়ন করার জন্যে যেসব প্রতিষ্ঠান রয়েছে তার মধ্যে জেলা পরিষদ অন্যতম। জেলা পরিষদ একটি প্রাচীন প্রতিষ্ঠান। এটি দীর্ঘদিন সেবা দিয়ে আসছে। আমারা প্রান্তিকভাবে যেসব কাজ করছি, তার প্রচার নেই। আমি আপনাদের মাধ্যমে এই প্রচারগুলো চাচ্ছি। আমরা প্রতিবছর অসহায় মানুষদের জন্যে ২০ লাখ টাকা অনুদান দিয়ে থাকি।
তিনি বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী একটি স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণের ঘোষণা দিয়েছেন। ২০৪১ ভিশনের মধ্যে বলা আছে, কৃষককে উদ্যোক্তা হিসেবে গড়ে তোলা। জেলা পরিষদের প্রধানতম কাজ হচ্ছে জেলার সরকারি সকল উন্নয়ন কাজ পর্যালোচনা করা। সাংবাদিকদের সাথে আজকের এই মতবিনিময় সভা এই জেলার উন্নয়নকে ত্বরান্বিত করতে খুবই গুরুত্ব বহন করে। যে কোনো প্রয়োজনে জেলা পরিষদ সাংবাদিকদের পাশে আছে। আপনারা বুদ্ধি পরামর্শ দিয়ে জেলা পরিষদের পাশে থাকবেন। সমৃদ্ধির চাঁদপুর গড়তে হলে সম্মিলিত প্রচেষ্টা থাকতে হবে। আমাদের চেয়ারম্যান মহোদয় শুধু প্রতিশ্রুতি দেন না, তিনি তা বাস্তবায়ন করেন। আমরা জনকল্যাণ কাজগুলো করে যাচ্ছি এবং করবো। আমরা মানুষের সেবা নিশ্চিত করছি।
বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি শাহাদাত হোসেন শান্ত, সাবেক সভাপতি অধ্যক্ষ জালাল চৌধুরী, গিয়াসউদ্দিন মিলন, এএইচএম আহসান উল্লাহ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক রহিম বাদশা, সিনিয়র সদস্য আলম পলাশ ও কোষাধ্যক্ষ তালহা জুবায়ের। অতিথি বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন সিলেট কোম্পানীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি আবুল হোসেন।
উপস্থিত ছিলেন চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি শহীদ পাটওয়ারী, সাবেক সাধারণ সম্পাদক আল ইমরান শোভন, সিনিয়র যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক শওকত আলী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কাদের পলাশ, সাংগঠনিক সম্পাদক ইব্রাহীম রনি, চৌধুরী ইয়াসিন ইকরাম, প্রচার ও দপ্তর সম্পাদক শরীফুল ইসলাম, সাহিত্য, প্রকাশনা ও লাইব্রেরি সম্পাদক হাসান মাহমুদ, ক্রীড়া সম্পাদক এমআর ইসলাম বাবু, আপ্যায়ন ও বিনোদন সম্পাদক আশরাফুল আলম, তথ্য ও প্রযুক্তি সম্পাদক মুনাওয়ার কানন, নির্বাহী সদস্য নেয়ামত হোসেন।
শুভেচ্ছা ও মতবিনিময় সভার প্রথম পর্ব পরিচালনা করেন জেলা পরিষদের প্রশাসনিক কর্মকর্তা শেখ মহিউদ্দিন রাসেল। সভার শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন জেলা পরিষদের প্রধান সহকারী মজিবুর রহমান।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো। বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।

%d bloggers like this: