ঢাকাশনিবার , ৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  1. অপরাধ
  2. অর্থনীতি
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আপন আলোয় উদ্ভাসিত
  6. আরো
  7. এক্সক্লুসিভ
  8. কবিতা
  9. কৃষি ও প্রকৃতি
  10. খুলনা
  11. খেলাধুলা
  12. গণমাধ্যম
  13. চট্টগ্রাম
  14. চাকুরি
  15. চাঁদপুর জেলার খবর
আজকের সর্বশেষ সবখবর

কবরস্থানের জমি নিয়ে বিরোধে এলাকাবাসীর মানববন্ধন

রূপসী বাংলা ২৪.কম
সেপ্টেম্বর ৯, ২০২৩ ৩:৪৯ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

কচুয়ার আকানিয়া-নাছিরপুর গ্রামে মিথ্যা মামলা দিয়ে গ্রামবাসীকে হয়রানির প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে ভুক্তভোগী পরিবার ও এলাকাবাসী। শুক্রবার দুপুরে আকানিয়া-নাছিরপুর গ্রামের সড়কে ভুক্তভোগী পরিবার ও এলাকাবাসীর আয়োজনে মামলাবাজ ছেফায়েত উল্যাহ মুন্সীর শাস্তির দাবিতে এ মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করা হয়।
মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, ৯নং কড়ইয়া ইউনিয়নের আকানিয়া-নাছিরপুর গ্রামের অধিবাসী মৃত আব্দুর রহিম উদ্দিন মুন্সীর ছেলে ছেফায়েত উল্যাহ মুন্সী তার চাচা সম্পর্কে একই গ্রামের রমিজ উল্যাহ গংয়ের সাথে কবরস্থানের ৭ শতাংশ জায়গাকে কেন্দ্র করে এক পরিবারের বিরুদ্ধে ৫টি মামলাসহ গ্রামের বিভিন্ন লোকজনের বিরুদ্ধে বিজ্ঞ আদালত ও থানায় ২১টি মামলা দিয়ে ৩৬ ব্যক্তিকে হয়রানি করে আসছেন। ৩৬ জনের মধ্যে বেশ ক’জনের বিরুদ্ধে একাধিক মামলা দায়ের করে।
প্রতিপক্ষ রমিজ উল্যাহর বিরুদ্ধে ছেফায়েত উল্যাহ মুন্সীর দায়েরকৃত মামলাগুলো হচ্ছে : মামলা নং-৮৩৫/২০২৩, ৯০/২০২৩, ১৭/২০২১, ৩৫৬/২০২১, ২২৩/২০২৩। এ মামলার আসামীরা হচ্ছে : মৃত সালামত উল্যাহর পুত্র রমিজ উল্যাহ, রমিজ উল্যাহর ছেলে মোহাম্মদ উল্যাহ, মোঃ রুবেল ও রমিজ উল্যাহর স্ত্রী। ছেফায়েত উল্যাহ মুন্সী ৮৩৫/২০২৩ মামলাটি দায়ের করেন ২২৮৮ দাগ উল্লেখ করে ওই দাগে ৭ শতাংশ জমির দাবিতে। অথচ ২২৮৮ দাগের ৭ শতাংশ জমির মালিক বাদী ছেফায়েত উল্যাহ মুন্সী নিজেই। এ দাগের কোনো জায়গা নিয়ে মামলার বিবাদী রমিজ উদ্দিন মুন্সীর সাথে মামলার বাদী ছেফায়েত উল্যাহর কোনো বিরোধ নেই। রমিজ উল্যাহ মুন্সী ২২৮৭ দাগে ৭ শতাংশ সম্পত্তির মালিক। ছেফায়েত উল্যাহ তথ্য গোপন করে অর্থাৎ মিথ্যা দাগ নং উল্লেখপূর্বক মামলা দায়ের করে প্রতিপক্ষকে হয়রানি করার প্রতিবাদ করায় (৯০/২০২৩) মামলায় বাদীর পুত্র আব্দুর রহমান (২৫) ও হাবিবুর রহমান (৩৬), নাতি শাহপরান শিশির (২০)কেও আসামী করা হয়। ওই মামলায় আব্দুর রহমান কয়েক দিন কারাবরণ করেন।
একইভাবে ছেফায়েত উল্যাহ মুন্সী ওই গ্রামের মৃত রেছায়েত উল্যাহ মুন্সীর ছেলে মজিব উল্যাহ ও অলি উল্যাহসহ ৮ জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং ৩৩৯/২০০৩।
ছেফায়েত উল্যাহ মুন্সী একই বাড়ির রেছায়েত উল্যাহ মুন্সীর বিরুদ্ধে ৩টি মামলা দায়ের করেন। যার নং-০৪/২০১৩ ও ১৬৭/২০১৯ ও মোঃ নং-২৬/২০১৩। অলি উল্যাহ, মামলা নং-২২/২০১৪, রমিজ উল্যাহর ছেলে মোহাম্মদ উল্যাহসহ ৬ জনকে আসামী করে মামলা নং-১৯৮/২০২২, মহিব উল্যাহর ছেলে দ্বীন ইসলাম, রাসেল, রেছায়েত উল্যাহর ছেলে অলি উল্যাহ, মহিব উল্যাহ ও মৃত গোলাম হোসেনের ছেলে শহীদ উল্যাহ, মামলা নং-১৬/২০১৯, মহিব উল্যাহর স্ত্রী মার্জিয়া বেগম, মজিব উল্যাহর স্ত্রী পারুল বেগম, অলি উল্যাহর স্ত্রী তাছলিমা বেগম, রেছায়েত উল্যাহর ছেলে মহিব উল্যাহ, অলি উল্যাহ ও মহিব উল্যাহর ছেলে রাসেল, জি.আর. মামলা নং ৩৩/১৯ ও মৃত গোলাম হোসেনের ছেলে শহীদ উল্যাহ গং, মামলা নং- ২৩/২০২১৯ খ্রিঃ।
এদিকে একের পর এক মামলা দায়ের করায় বিবাদী রমিজ উল্যাহ বাদী হয়ে ৯নং কড়ইয়া ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে ন্যায়বিচার চেয়ে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করলে ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম সওদাগর বেশ কয়েকবার ছেফায়েত উল্যাহকে নোটিস করলেও তিনি উপস্থিত হননি। পরবর্তীতে ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম সওদাগর বিবাদী ছেফায়েত উল্যাহ মুন্সীর কর্মকাণ্ড অনুসন্ধানের মাধ্যমে খারাপ প্রকৃতির ও আইন অমান্যকারী বলে প্রতিবেদন দেন। এ ঘটনায় বাদী ছেফায়েত উল্যাহ ও তার সহযোগীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি ও দ্রুত মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানান ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার ও এলাকাবাসী।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো। বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।

%d bloggers like this: